বাংলা

গীতিকবিতা কী বা গীতিকবিতা কাকে বলে?

আজকে আমরা জানবো  গীতিকবিতা কী বা গীতিকবিতা কাকে বলে

মন্ময়, আত্মনিষ্ঠ বা গীতিকবিতা (সাবজেকটিভ পয়েট্রি) এক ধরনের ব্যক্তনিষ্ঠ বা আত্মনিষ্ঠ কবিতা। কবির একান্ত ব্যক্তিগত অনুভূতি বা ভাব কল্পনা যখন ব্যঞ্জনা রসে সুষমামন্ডিত হয়ে সহজ ও সাবলীল ভাষায় আত্মপ্রকাশ করে তখনই গীতিকবিতার জন্ম হয়। এই গীতিকবিতার সাধারণ অর্থ গান ও কবিতার সংমিশ্রণ। ইংরেজি সাহিত্যে গীতিকবিতাকে Lyric বলে । Lyric বা সংগীতমূলক কবিতাগুলাে বীণা যন্ত্রের সাহায্যে গীত হতাে বলে একে গীতিকবিতা বলে।

গীতিকবিতা-র প্রামাণ্য সংজ্ঞা

বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের ভাষায়,

“বক্তার ভালােচ্ছ্বাসের পরিস্ফুটন মাত্র যাহার উদ্দেশ্য তাহাই গীতিকবিতা ।”

 

মােহিতলাল মজুমদার এর মতে, 

“যা আমরি অবস্থা, অথচ স্পষ্টগােচর নয়, যে বেদনা ব্যাকুল অথচ স্পষ্ট হয়ে ওঠে না যে সৌন্দর্যের আভাস পায় অথচ দেখেও দেখি না-মানুষের সেই আগত পূঢ়বাসনা এইরূপ অন্তসন্ধানী কবির কল্পনায় জাজ্বল্যমান হয়ে ওঠে।”

ST Colreidge এর ভাষাই,

 “Ballad turns upon a single thought and situation.

বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর এর মতে,

“যাহােক আমরা গীতিকবিতা বলে থাকি। অর্থাৎ যা একটুখানির মধ্যে একটি মাত্র ভাবের

বিকাশ, ঐ যেমন বিদ্যাপতি

“ভরা বাদর মাহ ভাদর

শূন্য মন্দির মাের’

সেই আমাদের মনের বহুদিনের অব্যক্তভাবে একটি কোন সুযোেগ অশ্রয় করিয়া ফুটিয়া ওঠা।”

গীতিকবিতা কী বা গীতিকবিতা কাকে বলে
                                গীতিকবিতা কী বা গীতিকবিতা কাকে বলে

 

যে কবিতায় কবির আত্মানুভূতি বা একান্ত ব্যক্তিগত কামনা-বাসনা ও আনন্দ-বেদনা তার প্রাণের অন্তস্থল হতে আবেগ কম্পিত সুরে অখণ্ড ভাব মূর্তিতে আত্মপ্রকাশ করে তাকেই গীতিকবিতা হিসেবে আখ্যায়িত করা হয়। এই গীতিকবিতায় পরিপূর্ণ মানবজীবনের ইঙ্গিত নেই, এখানে একক ব্যক্তিত্বের একান্ত ব্যক্তিগত অনুভূতি আনন্দ-বেদনায় পরিপূর্ণ। কবি হৃদয় এখানে আত্মবিমুগ্ধ, তাই সমগ্র কবিতাজুড়ে কবি হৃদয়ে প্রাণের স্পন্দন প্রকাশিত হয়। বাংলা গীতিকবিতার জনক বলা হয়  বিহারীলাল চক্রবর্তীকে

আরো পড়ুনঃ

সার্বিক মতামতঃ বাংলাদেশের জল-হাওয়ার মধ্যে, এর মাটিতে এমন একটি কোমলতা ও সুরের আবেশ আছে যাতে রামায়ণ মহাভারত হতে আরম্ভ চর্যাপদের পূল ছুঁয়ে বৈষ্ণব পদাবলীর তীর ছুঁয়ে রঙ্গলাল বন্দ্যোপাধ্যায়ের কবিতা স্পর্শ করে, মধুসূদনের “মেঘনাদবধ কাব্যে’র শরীর জুড়ে বিহারীলাল চক্রবর্তীর হাতে পূর্ণতা পেয়ে আধুনিক গীতিকবিদের হাতে তার সার্থক পদযাত্রা অব্যাহত আছে। আধুনিক কালের অনেক উৎকৃষ্ট গীতিকবিতা শুধু একতারার একটি গান বা কবির নিজক আগত ভাব কল্পনার প্রকাশ মাত্র নয়। কবি এর মধ্যে কখনাে নাটকীয়তা, কখনাে মহাকাব্যচিত ব্যঞ্জনার সঞ্চার করেন।

আশা করি লেখার মাধ্যমে প্রকাশ পেয়েছে গীতিকবিতা কী এবং গীতিকবিতা কাকে বলে। প্রতিনিয়ত এমন তথ্যবহুল লেখা পড়তে আমাদের সাইটে ভিজিট করুন।

ট্যাগঃ গীতিকবিতা কাকে বলেগীতিকবিতা কী।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button